অপশাসনের মূলোৎপাটনে জনতার ক্ষোভ তীব্রতর হচ্ছে: ফখরুল

অনলাইন ডেস্ক: বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বিরোধী নেতাকর্মীদের নামে মিথ্যা মামলা, তাদের ওপর হামলা, নির্যাতন, গুম, বিচারবহির্ভূত হত্যা, অপহরণ, চাঁদাবাজি ও দখলবাজিকে জাতীয় সংস্কৃতির অংশ করতে নানাবিধ পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে সরকার।

বুধবার (৩ জানুয়ারি) এক বিবৃতিতে ফখরুল এসব কথা বলেন। বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির বাণিজ্যবিষয়ক সম্পাদক ও সাবেক সংসদ সদস্য সালাহউদ্দিন আহমেদকে জামিন না দিয়ে কারাগারে পাঠানোর নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে এ বিবৃতি দেন তিনি।

তিনি বলেন, দেশ শাসনে নজীরবিহীন ব্যর্থতা ঢাকতেই বিএনপি নেতাকর্মীদেরকে মিথ্যা মামলায় কারাগারে আটকে রাখতে উন্মাদ হয়ে গেছে। তবে সরকারের সব অপকর্ম ও অপশাসনের মূলোৎপাটনে জনগণের ক্ষোভ এখন তীব্র থেকে তীব্রতর হচ্ছে। জনগণের ক্ষমতা জনগণের নিকট ছেড়ে দেওয়া না হলে অবৈধ সরকারের রাজসিংহাসন যে কোনো মুহুর্তে দুমড়ে মুচড়ে ফেলবে এদেশের স্বাধীনতাকামী মানুষ।

এতে ফখরুল আরো বলেন, ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনের আগের রাতে ভোটের মাধ্যমে নির্লজ্জভাবে রাষ্ট্রক্ষমতা দখলকারী আওয়ামী সরকার এখন ফ্যাসিবাদী কায়দায় দেশ শাসন শুরু করেছে। বিএনপিসহ বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদেরকে রাজনীতির অঙ্গন থেকে সরিয়ে দিতে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মিথ্যা মামলা দায়ের এবং আদালত কর্তৃক জামিন নামঞ্জুর যেন সরকারের দৈনন্দিন কর্মসূচিতে পরিণত হয়েছে। আর এই কর্মসূচি সফল করার লক্ষ্যে মানুষের ভোটের অধিকার এবং গণতান্ত্রিক অধিকারকে জোর করে কেড়ে নেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, দেশকে বিরোধী দলশূন্য করতে বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে কোনো কারণ ছাড়াই মিথ্যা মামলা দিয়ে কারান্তরীণ করা হচ্ছে। ভুয়া, বানোয়াট ও সাজানো মামলায় সালাহউদ্দিন আহমেদের জামিন বাতিল করে কারাগারে প্রেরণ বর্তমান গণধিকৃত সরকারের ধারাবাহিক অপকর্মেরই অংশ। অবিলম্বে সালাহউদ্দিন আহমেদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহার এবং তার নিঃশর্ত মুক্তির জোর দাবি জানান বিএনপি মহাসচিব।

Leave A Reply

Your email address will not be published.