বগুড়ায় ১২০ টাকায় পুলিশ কনস্টেল পদে চাকরি পেলন ৯৪ জন নারী-পুরুষ – Latest breaking news in bangla ৷ channel26

বগুড়ায় ১২০ টাকায় পুলিশ কনস্টেল পদে চাকরি পেলন ৯৪ জন নারী-পুরুষ

admin
প্রকাশিত এপ্রিল ২১, ২০২২
বগুড়ায় ১২০ টাকায় পুলিশ কনস্টেল পদে চাকরি পেলন ৯৪ জন নারী-পুরুষ

জুয়েল হাসানঃ  বুধবার রাত ১০ টায় বগুড়া পুলিশ লাইন্স অডিটোরিয়ামে কনস্টেবল পদে ফলাফল ঘোষণা করেন বগুড়া জেলা পুলিশ সুপার সুদীপ কুমার চক্রবর্ত্তী বিপিএম-সেবা। কনস্টেবল পদে শারীরিক ও মেধা অনুসারে উত্তীর্ণ হয়েছে ৯৪ জন।এর মধ্যে ৮০ জন পুরুষ এবং নারী প্রার্থী ১৪ জন।১২০ টাকার মধ্যে আছে ১০০ টাকার ব্যাংক ড্রাফট ও ২০ টাকা এস,এম,এস খরচ। বগুড়া জেলা পুলিশ সুপার সুদীপ কুমার চক্রবর্ত্তী বলেন, “মাত্র ১২০ টাকা খরচ করে শারীরিক এবং মেধার যোগ্যতায় চাকরি পেয়েছে তারা। নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার আগেই আমরা অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে দালাল ও প্রতারক চক্রকে দমন করার চেষ্টা করেছি। সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে নিয়োগ পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। গত ২৯ মার্চ মাত্র একশ টাকা ব্যাংক ড্রাফট করে বগুড়া পুলিশ লাইনে ৩ হাজার ২৬০ জন ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল পদে নিয়োগ পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন। বিভিন্ন ধাপ শেষ করে ৯২৫ জন লিখিত পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে ২৫৬ পাস করেন। এরপর মৌখিক পরীক্ষা শেষে ৮০ জন পুরুষ এবং ১৪ জন নারীকে চূড়ান্তভাবে মনোনীত করে ফল প্রকাশ করা হয়। মেধা তালিকায় উত্তীর্ণ হওয়া পুরুষদের মধ্যে প্রথম স্থান অধিকার করেন শিবগঞ্জের কিচক এলাকার কৃষক হারুন অর রশিদের ছেলে রাব্বী হাসান। তিনিবলেন, আমার বাবা একজন কৃষক। এ চাকরির মাধ্যমে আমার বাবা– মা এবং প্রতিবন্ধী বোন ও ছোট ভাইয়ের স্বপ্ন পূরণ করতে পারবো। নারীদের মধ্যে মেধা তালিকায় প্রথম স্থান অধিকার করেন সুমাইয়া আক্তার বলেন,আমার বাবা একজন প্রতিবন্ধী,তিনি কাজ করতে পারেন না, আমাদের অভাবের সংসার, ছোট ভাই পড়াশুনা করলেও অভাবের কারণে সে পড়াশুনা ছেড়ে রাজমিস্ত্রীর কাজ করে সংসার চালায়। আজকে এ অভাবের মধ্য দিয়ে কঠিন মনোবল নিয়ে পড়াশুনা করে আমি সফল হয়েছি। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আলী হায়দার চৌধুরী,আব্দুর রশিদ (অপরাধ), সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শরাফত ইসলাম, নওগাঁ জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবতাবউদ্দিন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফজল ই খুদাসহ ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ্র।