বান্দরবানে সন্ত্রাসী হামলায় সেনাসদস্য নিহত : আইএসপিআর – Latest breaking news in bangla ৷ channel26

বান্দরবানে সন্ত্রাসী হামলায় সেনাসদস্য নিহত : আইএসপিআর

Jakir Hossain
প্রকাশিত ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২২
বান্দরবানে সন্ত্রাসী হামলায় সেনাসদস্য নিহত : আইএসপিআর

 

ডেস্ক রিপোর্ট:

বান্দরবানের রুমায় সেনাবাহিনীর ওপর সন্ত্রাসীদের হামলায় সেনাবাহিনীর এক ওয়ারেন্ট অফিসার নিহত হয়েছেন। এ সময় গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয়েছেন এক সেনাসদস্য। বুধবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে বান্দরবানের রুমা উপজেলার রুমা-রাঙামাটি সীমান্তবর্তী দুর্গম বথিপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সেনা কর্মকর্তার নাম হাবিবুর রহমান। তিনি রুমা জোন (২৮) বীর রাইক্ষিয়াংলেক আর্মি ক্যাম্পের সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার। গুলিবিদ্ধ আহত অপর এক সেনাসদস্যের নাম মো. ফিরোজ। তাকে চট্টগ্রাম সিএমএইচে পাঠানো হয়েছে। এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতরের (আইএসপিআর) সহকারী পরিচালক রাশেদুল আলম খান। এ ছাড়া তিন সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে বলেও জানিয়েছে আইএসপিআর।

আইএসপিআর থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, জেএসএসপন্থী সন্ত্রাসীদের একটি দল রুমা উপজেলার বথিপাড়া এলাকায় চাঁদাবাজির উদ্দেশ্যে আগমন করবে- এমন তথ্যের ভিত্তিতে রাইং খিয়াং লেক আর্মি ক্যাম্প থেকে সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার হাবিবের নেতৃত্বে একটি নিরাপত্তা টহল দল উক্ত এলাকায় যায়। বুধবার (২ ফেব্রুয়ারি) রাত আনুমানিক সাড়ে ১০টার দিকে টহল দলটি বথিপাড়া এলাকায় পৌঁছালে নিকটস্থ একটি জুম ঘর থেকে সন্ত্রাসীরা অতর্কিত টহল দলের ওপর গুলি বর্ষণ শুরু করে।

সদা প্রস্তুত সেনা টহল দলটির দ্রুত প্রতিক্রিয়া এবং সাহসী পাল্টা হামলায় জেএসএস মূল দলের তিনজন সশস্ত্র সন্ত্রাসী বন্দুকযুদ্ধে গুলিবিদ্ধ হওয়ার আলামত পাওয়া যায়। এ সময় পলায়নপর সন্ত্রাসীদের এলোপাতাড়ি গুলিতে মাথায় গুলিবিদ্ধ হয়ে টহল কমান্ডার সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার হাবিবুর রহমান ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়েন এবং সৈনিক ফিরোজ নামে একজন সেনাসদস্য ডান পায়ে গুলিবিদ্ধ হন। নিহত এবং আহত সেনা সদস্যদেরকে বৃহস্পতিবার সকালে রুমা থেকে চট্টগ্রাম সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে হেলিকপ্টার যোগে স্থানান্তর করা হয়।

অভিযানে সেনা টহল দল কর্তৃক সন্ত্রাসীদের ব্যবহৃত একটি এসএমজি, ২৪৯ রাউন্ড তাজা গুলি, তিনটি এমোনিশন ম্যাগাজিন, তিনটি গাদা বন্দুক, গাদা বন্দুকের পাঁচ রাউন্ড গুলি, চার জোড়া ইউনিফর্ম এবং চাঁদাবাজিদের নগদ ৫২ হাজার ৯০০ টাকা জব্দ করা হয়। বর্তমানে সেনা টহল দল ওই এলাকায় ব্যাপক তল্লাশি জারি রেখেছে এবং স্থানীয় জনগণের নিরাপত্তা নিশ্চিত করছে।