জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আটক শিক্ষার্থীদের ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ

২০ জন শিক্ষার্থীকে বিকেলে ছেড়ে দেয় শাহবাগ থানা-পুলিশ৷

অনলাইন ডেস্ক:চলমান পরীক্ষা পেছানোর সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবিতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের আন্দোলন থেকে আটক হওয়া শিক্ষার্থীদের ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত আটক করা ২০ জন শিক্ষার্থীকে বিকেলে ছেড়ে দেয় শাহবাগ থানা-পুলিশ৷

শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মামুন অর রশীদ প্রথম আলোকে এ তথ্য জানিয়েছেন। ওসি বলেন, ওই শিক্ষার্থীদের তাঁরা জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন। কিন্তু ক্ষতিকর বা আপত্তিকর কিছু না পাওয়ায় তাঁদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৯ সালের ডিগ্রি পাস ও সার্টিফিকেট কোর্সের দ্বিতীয় বর্ষের এবং ২০১৮ সালের মাস্টার্স শেষ পর্বের পরীক্ষাসহ অন্যান্য সব প্রফেশনাল কোর্সের পরীক্ষা চলছিল। কিন্তু সরকারি সিদ্ধান্তে গত সোমবার এসব পরীক্ষা স্থগিত ঘোষণা করা হয়। এরপর আজ শিক্ষার্থীরা মার্চের মধ্যেই চলমান পরীক্ষাগুলো শেষ করার দাবিতে আন্দোলনে নামেন। এরই মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে স্থগিত পরীক্ষা ২৪ মে থেকে শুরু হবে বলে জানিয়েছে। তবে শিক্ষার্থীরা তাঁদের দাবিতে অনড়।

বিক্ষোভের জন্য জড়ো হলে আজ সকাল সাড়ে ১০টার দিকে শাহবাগ থেকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০ শিক্ষার্থীকে আটক করা হয়। এর প্রতিবাদে শিক্ষার্থীরা শাহবাগ থানার ফটকের পাশে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন। বেলা সোয়া একটার দিকে পুলিশের রমনা জোনের এডিসি হারুন অর রশীদ ও শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মামুন অর রশীদের নেতৃত্বে একদল পুলিশ শিক্ষার্থীদের ধাওয়া দেয়। এ সময় আরও বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থীকে আটক করা হয়৷

Leave A Reply

Your email address will not be published.