রাজধানীর হাতিরঝিলে গণমাধ্যমকর্মীর রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার – Latest breaking news in bangla ৷ channel26

রাজধানীর হাতিরঝিলে গণমাধ্যমকর্মীর রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার

Jakir Hossain
প্রকাশিত জুন ৮, ২০২২
রাজধানীর হাতিরঝিলে গণমাধ্যমকর্মীর রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার

 

নিজস্ব প্রতিবেদক:

রাজধানীর হাতিরঝিলের পুলিশ প্লাজা এলাকা থেকে একজনের রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তার নাম আব্দুল বারী। তিনি বেসরকারি টেলিভিশন ডিবিসি নিউজের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ প্রডিউসার হিসেবে কর্মরত ছিলেন। বুধবার সকালে আবদুল বারীর মরদেহ উদ্ধার করে গুলশান থানা পুলিশ। পুলিশের ধারণা, ৭-৮ ঘণ্টা আগে তাকে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে।

গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসান বলেন, তাকে খুন করা হয়েছে, তা স্পষ্ট। সুরতহালে সে রকম আলামতই আমরা পেয়েছি। সিআইডি’র ক্রাইম সিন ইউনিট হত্যাকাণ্ডের আলামত সংগ্রহ শেষে ময়না তদন্তের জন্য মরদেহ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

ওসি বলেন, ৭-৮ ঘণ্টা আগে তাকে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে। প্রাথমিকভাবে ধারণা পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এই হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়ে থাকতে পারে। এ ঘটনায় এখনো কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি। এই হত্যার তদন্ত গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হচ্ছে। পুলিশ জানায়, সকালে ছিন্নমূল কয়েকজন শিশু নিকেতন পার্শ্ববর্তী লেকপাড়ে একজনের মরদেহ দেখে পুলিশ সদস্যদের জানায়। পরে ঘটনাস্থলে গুলশান থানা পুলিশের সদস্যরা এসে মরদেহ উদ্ধার করে।

গুলশান বিভাগ পুলিশের অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার নাজমুল হাসান ফিরোজ জানান, মরদেহ এবং আলামত দেখে প্রাথমিকভাবে মনে হয়েছে বারীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে জখম করে মৃত্যু নিশ্চিত করেছে ঘাতকরা।

ধারণা করা হচ্ছে, প্রথমে বারীকে ছুরি দিয়ে আঘাত করা হয়। পরে সে বাঁচার জন্য পানিতে নেমে পড়ে। কারণ তার জামা কাপড় ভেজা ছিল। পরে বারী আবার লেকপাড়ে উঠে এলে তাকে মাটিতে ফেলে গলাকেটে মৃত্যু নিশ্চিত করা হয়। তার মরদেহের পাশ থেকে এসময় রক্তমাখা ছুরি, মানিব্যাগ এবং মোবাইল উদ্ধার করা হয়েছে। বারীর গ্রামের বাড়ি সিরাজগঞ্জ সদরে। সে মহাখালীতে ব্যাচেলর থাকত।