মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০২:০৬ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
জাতীয় সাংবাদিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন খুলনা জেলা শাখার কমিটি গঠন  জাতীয় সাংবাদিক কল্যাণ ফাউন্ডেশনের বাগেরহাট জেলা-কমিটি অনুমোদন  কৃষকের ধান  অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ ও এর প্রবাহ সচল করার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন। নরসিংদীতে অস্বাস্থ্যকর,পরিবেশে রঙ,কেমিক্যাল দিয়ে তৈরি হচ্ছে নিম্নমানের আইসক্রিম  আজকালের আলো সাহিত্য সম্মাননা ২০২৪  কুষ্টিয়ায় সংবাদ প্রকাশের জেরে সাংবাদিককে হত্যার হুমকি,থানায় জিডি পরে অভিযোগ সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সচেতন নাগরিক ফোরামের মানববন্ধন পরিবেশ অধিদপ্তরের অনিয়ম দুর্নীতির বিরুদ্ধে সতর্ক থাকার আহবান কবিতাঃ পাহাড়ি ঝর্ণা হাফিজ মাছুম আহমদ দুধরচকীর ঈদ শুভেচ্ছা।
বিজ্ঞপ্তি :

কুষ্টিয়ায় সংবাদ প্রকাশের জেরে সাংবাদিককে হত্যার হুমকি,থানায় জিডি পরে অভিযোগ

মে: শরিফুল ইসলাম

কুষ্টিয়া প্রতিনিধিঃ

কুষ্টিয়া দৌলতপুর মরিচা ইউনিয়ন এর”হেদায়েত মোল্লা” হাইকোর্টের নির্দেশনা অমান্য করে অবৈধভাবে বালি উত্তোলনকারী,জবরদখল করে হাট-ঘাট,অন্যের জমি-যায়গা দখল কারী ও স্থানীয় মানুষের দোকান-মার্কেট অবৈধ ভাবে দখলকারী হেদায়েত গংদের অন্যতম হেদায়েতের বিরুদ্ধে পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পর মানক্ষুন্ন হয়েছে বলে সাংবাদিকের কাছে চাঁদার দাবী ও সাংবাদিককে মোবাইল ফোনে জবাই করে হত্যার হুমকি দাতা কথিত সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজ বৈরাগীরচর মোল্লা পাড়ার হাসেম মোল্লার ছেলে হেদায়েত মোল্লা-৩৫,সম্পাদক ঢাকা নিউজলাইন,স্টাফ রিপোর্টার দৈনিক আরশীনগর ও জাতীয় পত্রিকা দৈনিক “নওরোজ” এর স্টাফ রিপোর্টার এবং কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব “কেপিসি” ও সাংবাদিক ইউনিয়ন কুষ্টিয়ার সদস্য কে মুঠোফোনের মাধ্যমে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও জবাই করে হত্যার হুমকি দিয়েছেন।এ ব্যাপারে গত বুধবার(১০ ই-এপ্রিল)সাংবাদিক আব্দুস সবুর বাদী হয়ে জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে কুষ্টিয়া সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি(জিডি)করেছেন।জিডি নম্বর-৭৬৬।জানা যায়,গত ২০/০৩/২০২৪ তারিখে দৈনিক নওরোজ,দৈনিক স্বর্ণযুগ,দৈনিক আরশীনগর,সৈনিক পদ্মা গড়াই,দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি পত্রিকা সহ বিভিন্ন পত্রিকা ও অনলাইন রেজিষ্টারভুক্ত পোর্টালে”দৌলতপুর অবৈধভাবে বালি উত্তোলনে হুমকির মুখে শত কোটি টাকার রক্ষা বাঁধ”শিরোনামে উল্লেখিত পত্রিকাতে খবর প্রকাশিত হয়।প্রকাশিত সংবাদের জের ধরেই গত ৩১/০৩/২০২৪ তারিখ রাত্রি ১০.৪৮ ঘটিকার সময় সাংবাদিক আব্দুস সবুর কুষ্টিয়া মডেল থানাধীন মজমপুর গেট এলাকায় অবস্থানকালে উল্লেখিত বিবাদী তার ব্যবহৃত মোবাইল নম্বর ০১৭২৯-৫৪,,,,,,হইতে সাংবাদিক আব্দুস সবুরের ব্যবহৃত মোবাইল নম্বর ০১৭১১-৩০,,,,,,,এ কল করে,কিন্তুু কল রিসিভ করতে একটু দেরি হওয়াতে কলটি কেটে যায়।তখন আব্দুস সবুর পুনরায় তার উক্ত মোবাইল নম্বর হইতে বিবাদীর মোবাইল নম্বরে কল করিলে বিবাদী সাংবাদিক আব্দুস সবুরের মোবাইল ফোনে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করে জবাই করে  প্রাণ নাশের হুমকি প্রদর্শন করে ফোন রেখে দেয়।এদিকে হেদায়েত গংদের একাধিক মামলা রয়েছে যাহার প্রতিটি মামলার মুলহোতা হেদায়েত মোল্লা।যাহার মামলা নং দৌলতপুর জিআর-২২,তারিখ-২২/০২/২০২৪।

এ ঘটনায় কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব”কেপিসি” ও সাংবাদিক ইউনিয়ন কুষ্টিয়ার সভাপতি হাজী রাশেদুল ইসলাম বিপ্লব ও সাংবাদিক ইউনিয়ন কুষ্টিয়া এর সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ হাসান সহ সাংবাদিক মহলের সকলকে অবগত করে বুধবার জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে কুষ্টিয়া সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী(জিডি) ও পরে গত ১৪-ই-এপ্রিল চাঁদা দাবী ও জবাই করে হুমকি দাতাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন।এ বিষয়ে সাংবাদিক আব্দুস সবুর জানান,গত ৩১/০৩/২০২৪ তারিখ রাত্রি ১০.৪৮ ঘটিকার সময় আমি কুষ্টিয়া মডেল থানাধীন মজমপুর গেইট এলাকায় অবস্থানকালে উল্লেখিত বিবাদী হেদায়েত মোল্লার ব্যবহৃত মোবাইল নম্বর ০১৭২৯-৫৪,,,,,,,হইতে আমার ব্যবহৃত মোবাইল নম্বর ০১৭১১-৩০,,,,,,,এ কল করে,কিন্তুু কল রিসিভ করতে একটু দেরি হওয়াতে কলটি কেটে যায়।তখন আমি পুনরায় আমার উক্ত মোবাইল নম্বর হইতে হুমকিদাতা হেদায়েত মোল্লার মোবাইল নম্বরে কল করিলে হেদায়েত মোল্লা আমাকে মোবাইল ফোনে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করে জবাই করে  প্রাণ নাশের হুমকি প্রদর্শন করে ফোন রেখে দেয়।আমি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীরকাছে জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে কুষ্টিয়া সদর থানায় সাধারণ ডায়েরী(জিডি) ও পরে অভিযোগ করেছি।আমাকে জবাই করে হুমকি দাতাকারীকে ও চাঁদা দাবীকারীদের আইনের আওতায় আনার আহ্বান জানিয়েছি।সাধারণ ডায়েরি(জিডি)’র তদন্ত কর্মকর্তা এসআই(নিরস্ত্র)অলোক রায় এর কাছে উল্লেখিত বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন,ঈদ ও পহেলা বৈশাখের ছুটির শেষে আদালত খুলেছে,ডিজি তদন্তের জন্য আমাদের আইনি প্রকৃয়া শুরু করেছি,এ বিষয়ে তদন্ত চলমান রয়েছে তদন্তপর সত্যতার ভিত্তিতে অপরাধীকে অবশ্যই আইনের আওতায় আনা হবে।অভিযোগের তদন্ত কর্মকর্তা এসআই নজরুল ইসলাম এর কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন,অভিযোগ পেয়েছি,তদন্ত চলমান রয়েছে,তদন্তে সত্যতার ভিত্তিতে অপরাধী যেই হোক ছাড় দেয়া হবেনা,এজাহার মুলে মামলা ভুক্ত হয়ে আসামিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


আমাদের ফেইসুবক পেইজ